বিএনপিতে পদত্যাগের হিড়িক

0

বিএনপির নতুন কমিটি ঘোষণার পর এবার দলীয় পদ থেকে বিদায় নিয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ব্যবসায়ী কাজী সালিমুল হক কামাল। এর আগে ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে মোসাদ্দেক আলী এবং সহপ্রচার সম্পাদকের পদ থেকে সরে দাঁড়ান শামীমুর রহমান শামীম।

বিতর্কিত লোকদের স্থায়ী কমিটিতে ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে স্থান দেওয়ার অভিযোগ তুলে পদত্যাগ করেছেন বিএনপির সদ্য ঘোষিত কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী কামাল।

নিজ স্বাক্ষর করা পদত্যাগপত্রটি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কাছে পাঠিয়েছেন তিনি। পদত্যাগপত্রের কপি বুধবার মাগুরায় কর্মরত সাংবাদিকদের কাছেও পাঠানো হয়েছে।

কাউন্সিলের সাড়ে চার মাস পর গত শনিবার বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতীয় স্থায়ী কমিটি, ৭৩ সদস্যের উপদেষ্টা কাউন্সিল ও ৫০২ সদস্যের জাতীয় নির্বাহী কমিটি ঘোষণা করেন। কমিটির বিরোধিতা করে এরই মধ্যে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করে দলে নিষ্ক্রিয় বা রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা চিন্তাভাবনা শুরু করেছেন।

পদত্যাগপত্রে কাজী কামাল বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সময়ের বিতর্কিত ব্যক্তিকে দলের ভাইস চেয়ারম্যান করা হয়েছে, যিনি গ্রুপিং করে মাগুরা জেলা বিএনপিকে দ্বিধাবিভক্ত করেছেন। স্থায়ী কমিটিতে এমন ব্যক্তিদের স্থান দেওয়া হয়েছে, যাদের সঙ্গে নিজের মানসম্মান ক্ষুন্ন করে রাজনীতি করা সম্ভব নয়। তাই তিনি কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে পদত্যাগ করছেন।

১৯৯৪ সালের সমালোচিত মাগুরা উপনির্বাচনে বিজয়ী হন কাজী কামাল। ওই সময় তাকে নির্বাচিত করতে ক্ষমতাসীন বিএনপির বিরুদ্ধে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ ওঠে। ২০০১ সালের নির্বাচনে একই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। ওই বছর তিনি মাগুরা জেলা বিএনপির সভাপতিও হন।

Share.