অর্থ আত্মসাতের মামলায় রাজউকের দুই জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী গ্রেপ্তার

12

পূর্বাচল প্রকল্পে সাড়ে তিন কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) দুজন জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলীকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাদের একজন হলেন রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক মো. ছাইদুর রহমান। অন্যজন হলেন রাজউকের নির্বাহী প্রকৌশলী এবং গুলশান-বনানী-বারিধারা ও উত্তরা লেক উন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মনোয়ারুল ইসলাম। আজ সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে এই দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বলে দুদক সূত্র সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছে। গ্রেপ্তারের পর তাঁদের রমনা থানা হাজতে রাখা হয়েছে। রাজউকের পূর্বাচল প্রকল্পে সাড়ে তিন কোটি টাকা আত্মসাতের মামলার এজাহারভুক্ত আসামি এই দুই প্রকৌশলী। সোমবার রাতেই এই দুজনসহ মোট ১২ জনকে আসামি করে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় একটি মামলা করেন সংস্থার সহকারী পরিচালক মো. সালাম আলী মোল্লা। মামলার এজাহারে বলা হয়, রাজউকের পূর্বাচল আবাসিক প্রকল্পের জন্য নারায়ণগঞ্জের কামতা মোজায় জমি হুকুম দখল করে সরকার। পরে জমির মালিকদের সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়। ওই সময় থেকে পরবর্তী কয়েক বছর ক্ষতিপূরণ প্রক্রিয়ায় রাজউক ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জড়িত ছিলেন। এ ধারাবাহিকতায় আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ওই মোজায় বাস্তবের চেয়ে বেশি গাছপালা দেখান। পাশাপাশি গাছের দাম বেশি দেখানো এবং সরকারি খাস জমিতে থাকা গাছ ব্যক্তি মালিকানায় দেখিয়ে তিন কোটি ৪৬ লাখ ৫১ হাজার ৮৯৭ টাকা আত্মসাৎ করেন।

Share.